ডিলেট করা ম্যাসেজ ও ফটো সার্ভারে রাখতো ইনস্টাগ্রাম!

সম্প্রতি Saugat Pokharel নামক একজন সিকিউরিটি রিসার্চারের দেওয়া তথ্য থেকে জানা যায়, ব্যবহারকারীদের ডিলিট করা মেসেজ এবং ফটো তাদের সার্ভার থেকে ডিলিট না করে সার্ভারে স্টোর করে রাখছে ইনস্টাগ্রাম।

Saugat Pokharel ইনস্টাগ্রামের ডাটা ডাউনলোড ফিচারটি ব্যবহার করে তার ডাটা ডাউনলোড করার পর লক্ষ করেন এই ডাউনলোডকৃত ডাটার মধ্যে তার অনেক আগের ডিলিট করা ব্যক্তিগত মেসেজ এবং ফটো রয়েছে। বিষয়টি উনি সর্বসাধারণের সামনে উপস্থাপন করলে তাদের ৬০০০ মার্কিন ডলার পুরস্কার দেওয়া হয়।

যেকোনো কোম্পানিই ব্যবহারকারীদের ডিলিট করা তথ্যগুলো সাময়িকভাবে তাদের সার্ভারে সংরক্ষণ করে রাখে। ইনস্টাগ্রামের ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম নয়। ইনস্টাগ্রামের মতে ব্যবহারকারীদের দ্বারা ডিলিট করা যেকোনো তথ্য তাদের সার্ভার থেকে ডিলিট হতে প্রায় ৯০ দিন সময় লাগে।

তবে Pokharel লক্ষ্য করেন যে যেসব ডাটা তিনি এক বছর আগে ডিলিট করেছেন সেগুলোও ইনস্টাগ্রাম তাদের সার্ভারে সংরক্ষণ করে রেখেছে এবং এমনকি এই ডাটাগুলো ডাউনলোড করার ব্যবস্থাও রয়েছে। TechCrunch’কে Pokharel জানান, “আমি ইনস্টাগ্রাম থেকে আমার ডাটা ডিলিট করার পরও ইনস্টাগ্রাম আমার ডাটা ডিলিট করেনি।”

Pokharel ২০১৯ সালের অক্টোবর মাসে এই বাগটির কথা ইনস্টাগ্রামের bug bounty প্রোগ্রামের মাধ্যমে ইনস্টাগ্রামকে জানান। এর উপর মন্তব্য করে ইনস্টাগ্রামের একজন মুখপাত্র TechCrunch কে জানান, “রিসার্চার ইনস্টাগ্রামের তথ্য ডাউনলোড ফিচার ব্যবহার করে তথ্য ডাউনলোড করা হলে এতে ডিলিট করা ইমেজ এবং মেসেজ থাকার ব্যপারটি আমাদেরকে জানান।

আমরা এই সমস্যাটির সমাধান করেছি এবং এতে কোনোরূপ সুরক্ষাজনিত সমস্যা হওয়ার প্রমাণ পাইনি। এই সমস্যাটি সম্পর্কে আমাদেরকে জানানোর জন্য আমরা রিসার্চারের কাছে কৃতজ্ঞ।”

একই ধরণের সমস্যা গত বছর টুইটারের সাথেও ছিল, যেখানে টুইটারে ডিলিট করা মেসেজগুলো স্টোর করে রাখা হত সার্ভারে। এমনকি ডিএক্টিভ হওয়া একাউন্টগুলোর তথ্য এবং মেসেজগুলোও স্টোর করে রাখতো টুইটার।

Leave a Comment